SYEDA SHEFA
আজ : ২৪শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সোমবার প্রকাশ করা : ডিসেম্বর ২৮, ২০২১

  • কোন মন্তব্য নেই

    কোটালীপাড়ায় এতিম শিশুদের মাঝে জ্ঞানের আলো পাঠাগারের কম্বল বিতরণ

    সুমন বালা,কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ): প্রচণ্ড শীতের কষ্টে কাতর এতিমখানার শিশুদের মুখে অকৃত্রিম হাসি। কোটালীপাড়া উপজেলার বিভিন্ন এতিমখানার অনেক শিশু গত কয়েক দিনে শীতে বেশ কষ্টে দিন যাপন করছিলেন।শীত নিবারনের জন্য ছিল না কোন লেপ বা কম্বল।এ সকল এতিম শিশুদের শীতের কষ্ট দূর করতে এগিয়ে আসে কোটালীপাড়ার স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন জ্ঞানের আলো পাঠাগার। সংগঠনটি ফেসবুকে পোষ্ট দিয়ে অর্থ সংগ্রহ করে উপজেলার ১৫ টি এতিম খানার শতাধিক শিশুর হাতে তুলে দেয় উন্নতমানের কম্বল।

    আজ মঙ্গলবার সকালে জ্ঞানের আলো পাঠাগার চত্ত্বরে কোটালীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফেরদৌস ওয়াহিদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কম্বল বিতরণ করেন। এ সময় উপজেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম দাড়িয়া, যুবলীগ নেতা ভিপি লিটন শেখ, জ্ঞানের আলো পাঠাগারের সভাপতি সুশান্ত মন্ডল, প্রেসিডিয়াম সদস্য আজিজুল ইসলাম, সহ-সভাপতি নাহিদ হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান পারভেজসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

    লোহারঙ্ক দারুল কোরআন মাদ্রাসা ও এতিমখানার নুরানী বিভাগের ছাত্র হোসাইন (৭)। কম্বল হাতে পেয়ে তার উচ্ছ্বাস আর আনন্দ সকলের নজর কারে। এই মাদ্রাসার মোহতামিম মুফতি শহিদুল ইসলাম বলেন, হোসাইনের বাবা নেই। খুবই দরিদ্র পরিবারের সন্তান। মাদ্রাসায় বিনামূল্যে লেখাপড়া করছে। কম্বল না থাকায় শীতে দারুন কষ্টে ভূগছিল। জ্ঞানের আলো পাঠাগার থেকে কম্বল পাওয়ায় হোসাইনের মত শতাধিক শিশুর শীতের কষ্ট দূর হবে।

    জ্ঞানের আলো পাঠাগারের সভাপতি সুশান্ত মন্ডল বলেন, ফেসবুকের মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহ করে প্রতি বছর আমরা অসহায় দরিদ্রদের মাঝে কম্বল বিতরণ করি। এরই ধারাবাহিকতায় এবার উদ্যোগ নেই উপজেলার এতিমখানাগুলোর হতদরিদ্র শিশুদের মাঝে কম্বল বিতরণের। এজন্য ফেসবুকে পোষ্ট দিয়ে অর্থ সহায়তা চাই। কিছু মানবিক মানুষ এই কাজের জন্য ৪৪ হাজার ২১৫ টাকা পাঠায়। সেই টাকা দিয়ে আজ ১৫ টি এতিমখানার ১০০ জন্য শিক্ষার্থীদের হাতে কম্বল তুলে দেওয়া হয়।

    আওয়ামীলীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম দাড়িয়া বলেন, জ্ঞানের আলো পাঠাগার সবসময় অসহায় দরিদ্র মানুষের সহায়তায় নিবেদিত থাকে। সমাজের বিত্তবান ব্যক্তিদের উচিত এই সংগঠনের পাশে থেকে সহযোগিতা করা।

    কোটালীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফেরদৌস ওয়াহিদ বলেন, শিক্ষা উন্নয়নের পাশাপাশি আর্তমানবতার সেবায় একটি রোল মডেলে পরিণত হয়েছে জ্ঞানের আলো পাঠার। ফেসবুক ব্যবহার করে মানুষের কল্যানে কাজ করা যায় তা দেখিয়ে দিয়েছে এই সংগঠনটি। সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষদের সেবা দেওয়ার মাধ্যমে জ্ঞানের আলো পাঠাগার তৈরী করেছে মানবতার জাগরণ। জ্ঞানের আলো পাঠাগার এতিমখানাগুলোর দরিদ্র শিশুদের মাঝে কম্বল দিয়ে যেমন শীতের কষ্ট দূর করেছে তেমনি এই সংগঠনটি মানবতার কল্যাণে উজ্জ্বল দৃষ্ঠান্ত হয়ে থাকবে। সকলের উচিত জ্ঞানের আলো পাঠাগারের পাশে থেকে তাদের এই মানবিক কাজগুলোতে সার্বিক সহায়তা করে।

    Source: PBA

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    © স্বত্ব আজকের কাগজ ২৪ ডট নেট ।২০১৮-২০২১
    সম্পাদক ও প্রকাশক: কামরুল হাসান চৌধুরি
    পিয়াস বিল্ডিং পূর্ব শাহী ঈদগাহ, টিবি গেইট , সিলেট
    ফোন: ০১৭১১০০০২১৪ , ইমেইল: ajkerkagoj24@gmail.com
    %d bloggers like this: