• রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০৯:০১ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

টঙ্গীতে কাউন্সিলরের ছেলেকে আটকের পর রহস্যজনক কারণে ছেড়ে দিল পুলিশ

Avatar
নিউজ ডেস্কঃ
আপডেট : রবিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২১

গাজীপুরের টঙ্গীতে তুচ্ছ ঘটনার জেরে স্বস্ত্রীক এক পুলিশ সদস্যকে মারধর করার দায়ে স্থানীয় ৪৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফারুক আহম্মেদ এর ছেলে সিফাতকে (২০) আটক করেছে পুলিশ। রোববার দুপুরে টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে এ ঘটনাটি ঘটে।

হাসপাতাল ও পুলিশসূত্রে জানা যায়, দুপুর ১২ টার দিকে গাছা থানার পুলিশ কনস্টেবল রিপন তার স্ত্রীকে নিয়ে চিকিৎসার জন্য টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে যায়। তারা ৩ তলার টিকাদান কেন্দ্রের সামনে গেলে মোছাই করা ফ্লোরে হাটা চলা করার কারনে হাসপাতালে আয়ার সাথে কনস্টেবলের স্ত্রীর তর্কাতর্কি হয়। এ বিষয়ে পুলিশ সদস্য রিপন জিজ্ঞাসাবাদ করলে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির কোভিড-১৯ টিকাদান কেন্দ্রের স্বেচ্ছাসেবক কর্মী সাদিয়ার সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে কাউন্সিলরের স্ত্রী শিউলী বেগম, ছেলে সিফাত ও স্বেচ্ছাসেবক কর্মী সাদিয়া কনস্টেবল রিপন ও তার স্ত্রীর উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে মারধর করে গুরুতর আহত করে।

উপায়ন্তর না পেয়ে রিপন পুলিশকে ফোন দিলে টঙ্গী পূর্ব থানার এসআই জুলহাস উদ্দিন সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে পৌছে সিফাতকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। আশপাশের লোকজন আহতদের উদ্ধার করে একই হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়। ঘটনার খবর পেয়ে ৪৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফারুক আহম্মেদ ঘটনাস্থলে আসেন এবং হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কের রুমে বসে উভয় পক্ষের কথা শুনেন। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রক্রিয়া প্রায় শেষ পর্যায়ে। হঠাৎ অজানা কারনে অভিযুক্ত সিফাতকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।
এ বিষয়ে টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ মো. জাবেদ মাসুদের মুঠোফোনে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

পিবিএ/এমএসএম


এই বিভাগের আরো খবর

নামাজের সময় সূচীঃ

সেহরির শেষ সময় - ভোর ৩:৫৭ পূর্বাহ্ণ
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:৩৩ অপরাহ্ণ
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:০২ পূর্বাহ্ণ
  • ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ
  • ৪:৩১ অপরাহ্ণ
  • ৬:৩৩ অপরাহ্ণ
  • ৭:৫৩ অপরাহ্ণ
  • ৫:২১ পূর্বাহ্ণ