• রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১, ১২:২২ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

রাজশাহীর তানোরে পৌরসভার নির্বাচন হবে ভালোবাসা দিবস ১৪ ফেব্রুয়ারি

Avatar
নিউজ ডেস্কঃ
আপডেট : রবিবার, ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

আশরাফুল ইসলাম রনজু রাজশাহী প্রতিনিধিঃ ১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবস । এই দিনটি আন্তর্জাতিক ভালবাসা দিবস হিসেবে পালিত হয়।এখন দেখার বিষয় এই দিবসে কে পাবে জনগণের ভালোবাসা সেই হবে তানোর পৌরসভার নগর পিতা। রাজশাহী তানোর পৌরসভার নির্বাচনের মাঠ যেন উৎসবের আমেজ। ব্যানার ফেস্টুন আর গানের মাধ্যমে প্রচারণা দেখা মনে হচ্ছে নতুন কিছু পাওয়ার আশায় অপেক্ষার খন গুনছে জনসাধারণ। কেউ চাচ্ছে নৌকা অন্যদিকে কেউ চাচ্ছে ধানের শীষ। কে বসবে এবার পৌর পিতার চেয়ারে। নৌকা প্রতীকে ভোট করছেন গত নির্বাচনে ১৩ ভোটে পরাজিত ইমরুল হক আর ধানের শীষ প্রতীকে মিজান। আর এর মাঝখানে স্বপ্নের বাসা বেঁধেছে স্বতন্ত্র প্রার্থী মালেক।
অনেকেই মনে করছেন যেহেতু আওয়ামী সরকার শেখ হাসিনা ক্ষমতায় তাহলে উন্নয়নের লক্ষ্যে নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হবে আর অন্যদিকে অনেকেই মনে করছেন তানোর উপজেলার আওয়ামী রাজনীতিক দ্বন্দ্বে বিএনপি অধ্যাষিত এলাকায় বর্তমান মেয়র ধানের শীষের প্রার্থী মিজানুর রহমানকেই বেছে নিবে পৌরবাসী।

রাজনৈতিক দ্বন্দ্বে তানোর মুন্ডুমালা পৌরসভায় নৌকা পরাজিত হয়ে আওয়ামী সমর্থিত সতন্ত্র প্রার্থী সাইদুর এর বিজয় ঘটেছে যা রাজশাহী জেলায় ব্যতিক্রম। তানোর পৌরসভায় নৌকার প্রার্থীর ক্ষেত্রে এটির প্রভাব পড়বে বলে অনেকেই মনে করছেন। তানোর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতির আস্থাভাজন ব্যক্তি আওয়ামীলীগ সমর্থিত সতন্ত্র প্রার্থী সাইদুর রহমান থাকায় মুন্ডুমালায় নৌকার পক্ষে প্রচারণায় ছিল না তানোর উপজেলা আওয়ামী সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। অন্য দিকে তানোর পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর পক্ষে তানোর উপজেলা আওয়ামী সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক অবস্হান নিলেও মাঠে দেখা মেলেনি এমপি সমর্থিত আওয়ামী নেতাদের। তবে এমপি সমর্থিত আওয়ামী নেতারা বলছেন পরিকল্পিত ভাবে মুন্ডুমালা পৌরসভায় তানোর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নৌকার বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে সতন্ত্র প্রার্থী দাঁড় করিয়ে নৌকার প্রার্থীকে পরাজিত করেছে তাই তানোর পৌরসভায় তাদের সমর্থিত প্রার্থী নৌকা প্রতীক পাওয়ায় আমাদের সহযোগিতা তাদের প্রয়োজন নেই বলে তারা মনে করেন। তবে তানোর পৌরসভার নৌকার মনোনীত প্রার্থী যদি মনে করেন আমাদের সহযোগিতা প্রয়োজন তাহলে অবশ্যই আমরা সহযোগিতা করবো। তাই আওয়ামী রাজনীতিক দ্বন্দ্বে অনেকেই মনে করছেন এবার তানোর পৌরসভায় আবারও ধানের শীষের প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত।

তবে সুধিজনরা মনে করছেন বিশাল ক্ষমতার অধিকারী ওমর ফারুক চৌধুরী এমপির বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে কতটুকু সাফল্য অর্জন করবেন তানোর উপজেলা আওয়ামী সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। অন্যদিকে তানোর উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি লুৎফর হায়দার রশীদ ময়না আওয়ামীলীগ সমর্থিত সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরীর আস্থাভাজন হওয়ায় রাজনৈতিক সাফল্য অর্জনে হিমসিম খেতে হচ্ছে উপজেলা আওয়ামী সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে।
তবে তৃণমূল আওয়ামীলীগ বলেছেন ২০০১ সালের পর থেকে এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী তানোর গোদাগাড়ী তথা রাজশাহী আওয়ামীলীগের জন্য যা করেছেন তা আওয়ামীলীগের শক্ত অবস্থান তৈরিতে বিরল। যা অন্য কোন আওয়ামীলীগ নেতার দ্বারা সম্ভব হতো না। তাই সকল দ্বন্দ্ব নিরসন করে ওমর ফারুক চৌধুরীর ছত্রছায়ায় তানোর গোদাগাড়ীর আওয়ামীলীগ একত্রিত হয়ে কাজ করলেই আওয়ামীলীগ শক্ত অবস্থান তৈরিতে সক্ষম হবে।
নৌকার প্রার্থী ইমরুল বলেন, যেহেতু বর্তমান মেয়র পৌরসভায় সেরকম কোন উন্নয়ন করতে পারেনি তাই আমার পক্ষে পৌরসভার শতকরা আশি ভাগ ভোটার রয়েছেন আমি নিশ্চিত পাশ করবো ইনশাআল্লাহ এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই।
অন্য দিকে ধানের শীষের প্রার্থী মিজানুর রহমান বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আমি আবারও মেয়রের দায়িত্ব পাব জনসাধারণ আমার পক্ষে রয়েছেন।
সতন্ত্র প্রার্থী সাবেক ছাত্রদল সভাপতি আব্দুল মালেক বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে রাজনীতি করে আসছি আমি সতন্ত্র প্রার্থী হলেও ব্যক্তি ইমেজে আমার নিজ গ্রাম আমশো সহ পৌরসভার প্রতিটি গ্রামের মানুষ আমাকে চিনে তাই দল মত নির্বিশেষে সকলে আমাকে ভোগ দিয়ে জয়যুক্ত করবেন ইনশাআল্লাহ।
জনসাধারণ ও প্রার্থীরা মন্তব্য করেছেন যে তানোর উপজেলার মুন্ডুমালা পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো মুন্ডুমালা পৌরসভায় রিটার্নিং অফিসারের দায়িত্বে থাকা অবস্থায় একটি মডেল অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দিয়েছেন তাই তানোর পৌরসভাতেও তিনি একটি সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দিবেন।
তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও তানোর পৌরসভার রিটার্নিং অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিতে সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। আমি মুন্ডুমালা পৌরসভার মত তানোর পৌরসভায় একটি মডেল অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দেব। কোন অপশক্তি নির্বাচনকে বিতর্কিত করার চেষ্টা করলে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ রাকিবুল হাসান জানান, সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিতে পুলিশ বাহিনী সজাগ রয়েছেন। পুলিশ মাঠে সারাক্ষন কাজ করে যাচ্ছে। সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন পরিচালনার জন্য নির্বাচনের দিন অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হবে।


এই বিভাগের আরো খবর

নামাজের সময় সূচীঃ

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:০৬
  • ১২:১৪
  • ১৬:২৪
  • ১৮:০৬
  • ১৯:১৯
  • ৬:১৭