• বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৩:৩০ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

লাল – সবুজের পতাকা বিক্রিয় ব্যস্ত ফেরিওয়ালা

Avatar
নিউজ ডেস্কঃ
আপডেট : রবিবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০২০

এম এ আলম, চৌদ্দগ্রাম প্রতিনিধি: চৌদ্দগ্রাম উপজেলার পৌর সভায় সহ ১৩ ইউনিয়ন লাল – সবুজের পতাকা বিক্রিয়ে ব্যাস্ত ফেরিওয়ালা মোহাম্মদ আল আমিন বিজয়ের মাস ডিসেম্বর।

পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর সঙ্গে দীর্ঘ নয় মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ শেষে তাজা প্রাণের বিনিময়ে ১৯৭১ সালে এই মাসে বাঙালি জাতি বিজয় ছিনিয়ে এনেছিল। মুক্তিযুদ্ধে জীবন উৎসর্গকারীদের রক্তের প্রতীক বহন করে লাল-সবুজের জাতীয় পতাকা। বিজয়ের মাসে সরকারি-বেসরকারি অফিস, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বাড়ির ছাদে, যানবাহনের সামনে এমনকি গ্রামাঞ্চলে বাইসাইকেলের সামনেও জাতীয় পতাকা উড়ান অনেকেই। এজন্য বিজয়ের মাস এলেই দেশজুড়ে জাতীয় পতাকার চাহিদা বেড়ে যায়।

চৌদ্দগ্রাম উপজেলার পৌরসভা বিভিন্ন হাট বাজার বাসস্ট্যান্ডে উপজেলায় দোয়েল চত্বরসহ বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে জাতীয় পতাকা বিক্রি শুরু করছেন মৌসুমী ব্যবসায়ী তবে এদের অনেকেই ব্যবসায়ী হিসাবে নয় মানুষের মাঝে বিজয়ের চেতনা জাগাতে এ কাজ করছেন বলে জানান চৌদ্দগ্রাম পতাকা বিক্রি করতে আসা মোহাম্মদ আল আমিন সিলেটবিভাগের সিলেট জেলা সদর থানা পৌরসভা ২ নং ওয়াডের জালালাবাদ গ্রামের মৃতঃ মোস্তফার পুত্র মোহাম্মদ আল আমিন, কুমিল্লায় জেলা শহরে চকবাজার এলাকা ভাড়ায় বাসা থেকে প্রতিদিন সকালে বিভিন্ন উপজেলার বাজারের বাজারে জাতীয় পতাকা বিক্রিয় করি আর বিজয়ের মাস ছাড়া অন্যসময় ফেরি করে কসমেটিক্স,থানকাপড়, কেনা-বেচা, করি। এ মাসে পতাকার চাহিদা বেশি থাকে, তাই পতাকা বিক্রিয় করছি। তাছাড়া তার ধারণা মাসজুড়ে মানুষের হাতে পতাকা তুলে দিয়ে যদি দুটি মানুষের মাঝে বিজয়ের চেতনা জাগাতে পারি তাতেই স্বার্থকতা।
তিনি গত ৩ বছর ধরে বিজয়ের মাস এলেই লম্বা বাঁশের ওপর থেকে নিচ পর্যন্ত বড় থেকে ছোট আকারের পতাকা সাজিয়ে বিক্রি করতে বিভিন্ন জায়গায় ছুটে যান,জাতীয় পতাকা ছাড়াও তার কাছে পাওয়া যায় হাতে ও মাথায় বাঁধার লাল সবুজের ব্যাচ,
বিভিন্ন ধরনের লাল সবুজের স্টিকার ও পতাকা ক্রেতা, জেসন ফার্মাসিটিক্যাল এর প্রতিনিধি, মোহাম্মদ শাহাদাৎ হোসেন মজুমদার, বলেন, ছোট ছেলে – মেয়ে জন্য পতাকা কিনলাম। বিজয়ের মাসে ছোটদের হাতে পতাকা তুলে দিলে তাদের মাঝেও বিজয়ের চেতনা বোধ জাগ্রত হয়। স্বাধিনতা সম্পর্কে জানার আগ্রহ বাড়ে। মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রাজ্জাক বলেন, বিজয়ের মাসে ঘুরে ঘুরে পতাকা বিক্রি করে মানুষের মাঝে বিজয়ের চেতনা জাগিয়ে তুলতে তারা ব্যাপক ভূমিকা পালন করে।


এই বিভাগের আরো খবর

নামাজের সময় সূচীঃ

সেহরির শেষ সময় - ভোর ৪:১২ পূর্বাহ্ণ
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:২৬ অপরাহ্ণ
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:১৭ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০১ অপরাহ্ণ
  • ৪:৩০ অপরাহ্ণ
  • ৬:২৬ অপরাহ্ণ
  • ৭:৪৩ অপরাহ্ণ
  • ৫:৩৩ পূর্বাহ্ণ