• রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ১০:৪৩ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

চরফ্যাশনে প্রতিনিয়ত দীর্ঘ যানজটে পথচারীদের ভোগান্তি

Avatar
নিউজ ডেস্কঃ
আপডেট : বুধবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২০

এম আবু সিদ্দিক,ভোলা প্রতিনিধি: ভোলার চরফ্যাশনে এখন প্রতিনিয়ত দীর্ঘ যানজটের কবলে!
ফলে পথচারীরা ভোগান্তীতে পরছে। দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে নিরাপদ সড়ক চলাচলে।

সরেজমিনে এই চিত্র প্রতিনিয়ত।দেখা গেছে, বাজারের প্রধান সড়কের দু’পাশে হোন্ডা,বোরাক, রিক্সা,অটো রিকসা টমটম, নসিমন-করিমনের স্ট্যান্ড!অনেকে ব্যক্তিগত গাড়ি পার্কিং করে রাস্তার দুইপাশে মটর সাইকোল রেখে যানচলাচলে বিঘ্ন ঘটাচ্ছে।এ ছাড়াও রাস্তার দু’পাশ জুড়ে গড়ে উঠেছে অবৈধ দোকানপাট।সদররোডে দীর্ঘক্ষণ যানজটের কবলে পড়ে ঘন্টার পর ঘন্টা বসে থাকতে দেখা যায় যাত্রী ও যানচালকদের৷

যানজটের বিরক্তিকর অভিজ্ঞতা এড়াতে অনেকেই পায়ে হেঁটে গন্তব্যে পৌঁছানোর জন্য পরিবহন থেকে নেমে যেতেও দেখা যায়৷
এ ব্যাপারে ভোলা জেলা নাগরিক ফোরাম (দক্ষিণ) কমিটির সভাপতি এম আবু সিদ্দিক বলেন, প্রভাবশালী কিছু ব্যক্তিদের সিন্টিকেটের কারনে শহরে প্রতিনিয়ত যানজট ও সড়ক অব্যবস্থাপনার জন্য পৌর কর্তৃপক্ষই দায়ী।কারন তাদের নেই কোন মনিটরিং।নাগরিকসেবা থেকে তারা বন্চিত।
পথচারীদের যানজট নামের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে৷সদররোড উম্মুত্ত রাখতে চরফ্যাশন পৌরসভা ইজারা না দিলেও একটি চক্র সদররোডে দুপাশে ছোট ছোট দোকান বসিয়ে ব্যক্তিস্বার্থে লাভবান হলেও মানুষের ভোগান্তি বাড়ছে।শহরে রাস্তার উপর যত্রতত্র বিভিন্ন দোকানের কারনে নাগরিকরা অসহায়। পরিবহনের যেন মিনি স্ট্যান্ডে পরিনত হয়েছে। সাধারণ নাগরিক এই যন্ত্রণা থেকে মুক্তি চায়।
চরফ্যাশন বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মনির উদ্দিন চাষী বলেন, চরফ্যাশন বাজারে সড়কের উপর বসানো ছোট ছোট অস্থায়ী দোকান উচ্ছেদ করার দায়িত্ব পৌরসভার।
যানজটের স্থায়ী সমাধানের জন্য অবৈধ স্ট্যান্ড ও ফুটপাত থেকে দখলদার উচ্ছেদ করলে স্বাভাবিক হবে মানুষের চলাচল।কমবে যানজট।এ ব্যাপারে পৌর কর্তৃপক্ষ উদ্যোগ নিবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন৷
এ বিষয়ে চরফ্যাশন পৌর মেয়র বাদল কৃষ্ণ দেবনাথ জানান, একাধিকবার প্রশাসন কে নিয়ে পৌরসভা থেকে রাস্তার উপরের দোকানপাট উচ্ছেদ করলেও তাদেরকে একটি বিশেষ মহল আবার বসায়।নিজেদের বিবেক তাদের একটুও নাড়া দেয়না। নিরাপদে জনসাধারণ চলাচলের ব্যবস্থা করতে হলে সকলের সহযোগিতা চাই৷ জনস্বার্থে আমরা যানজট নিরসনে আবারও তাদের বিরুদ্ধে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করবো।


এই বিভাগের আরো খবর

নামাজের সময় সূচীঃ

সেহরির শেষ সময় - ভোর ৪:১৭ পূর্বাহ্ণ
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:২৪ অপরাহ্ণ
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:২২ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০২ অপরাহ্ণ
  • ৪:৩০ অপরাহ্ণ
  • ৬:২৪ অপরাহ্ণ
  • ৭:৪০ অপরাহ্ণ
  • ৫:৩৭ পূর্বাহ্ণ