সীমান্তে বিজিবি’র সর্বোচ্চ সতর্কতা

বাংলাদেশ অবশ্য বরাবারই জানিয়ে এসেছে আসামের নাগরিকপঞ্জি একেবারেই ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়, এ নিয়ে বাংলাদেশের কোনো মন্তব্য নেই৷ কিন্তু ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির পক্ষ থেকে বারবার তালিকায় বাদ পড়াদের বাংলাদেশ থেকে যাওয়া অবৈধ অভিবাসী বেল আখ্যা দেয়ায় এ নিয়ে সীমান্তে অস্থিরতা সৃষ্টির আশঙ্কা বাড়ছে৷

বাংলাদেশ সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশকে (বিজিবি) সতর্ক অবস্থায় রাখা হয়েছে। খবর ডয়চে ভেলে’র।জার্মান ভিত্তিক এই গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, বাংলাদেশের সীমান্ত এলাকা, বিশেষ করে সিলেট সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ- বিজেবিকে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রাখা হয়েছে।

আসামে যাদের নাগরিক তালিকার বাইরে রাখা হয়েছে, তাদের যাতে ভারত কোনোভাবে বাংলাদেশে ঢুকিয়ে দিতে না পারে, সেজন্য সীমান্তে নজরদারী বাড়ানো হয়েছে।

বিজিবির ১৯ ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্নেল সাঈদ হোসেন ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘তারা তিন ধাপে নাম প্রকাশ করলো। প্রথম ধাপে যখন তারা নাম প্রকাশ করে তখন থেকেই বিজিবি সতর্ক অবস্থায় আছে। শুধু বিজিবি নয়, সীমান্তের সাধারণ মানুষ, জনপ্রতিনিধি এবং প্রশাসন সবাইকে নিয়েই বিজিবি কাজ করছে। আমরা যেকোনো ধরনের পুশ-ইন প্রতিহত করতে প্রস্তুত আছি৷’

তিনি বলেন, ‘আমরা গত প্রায় দেড় বছর ধরে সীমান্ত এলাকার সাধারণ মানুষকে সচেতন করেছি। ভারত যাদের অবৈধ বলছে তাদের যদি পুশ-ইনের চেষ্টা করে তাহলে আমরা সবাই মিলে যাতে প্রতিহত করতে পারি। এ ধরনের কোনো চেষ্টা বিজিবির নজরে না পড়লেও যদি সাধারণ মানুষের নজরে পড়ে, তাহলে সাথে সাথে আমাদের জানানোর জন্য সবাইকে সতর্ক করে দেয়া আছে।’

পিবিএ

সংবাদকর্মি নিয়োগ চলছেঃ-

দেশের সকল জেলা উপজেলাইয় সংবাদকর্মি নিয়োগ চলছে । আমাদের সাথে কাজ করতে সরাসরি যোগাযুগ করুন ০১৭১১০০০২১৪