নারীদের কর্মসংস্থানে সেলাই মেশিন দিলো হাজী আব্দুস শহীদ ফাউন্ডেশন

2
  • নারীদের কর্মসংস্থানে সেলাই মেশিন দিলো হাজী আব্দুস শহীদ ফাউন্ডেশননিউজ ডেস্ক ::দক্ষিণ সুরমার আলমপুরে হাজী আব্দুস শহীদ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সুবিধাবঞ্চিত নারীদের মধ্যে সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়েছে। শনিবার (১৫ জুন) বিকেল ৫টায় হাজী আব্দুস শহীদ কলা মিয়ার বাড়ির প্রাঙ্গণে এই সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়।
    এ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি জয়দেব কুমার ভদ্র বিপিএম। সুপ্রিম কোর্ট বারের আইনজীবী ফুরুক আহমদের সভাপতিত্বে ও নাজিম উদ্দিনের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডিআইজি সিলেট রেঞ্জ কার্যালয়ের পুলিশ সুপার নুরুল ইসলাম, সাংবাদিক আবুল মোহাম্মদ, বিশিষ্ট মুরব্বী মুজিবুর রহমান, ফারুক মিয়া, আপ্তাব মিয়া, কামাল আহমদ, প্রবাসী আবু বকর, আবুল কালাম, নুরুল ইসলাম সুমন, নিজু আহমদ প্রমুখ। হাজী আব্দুস শহীদ ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক যুক্তরাজ্য প্রবাসী আব্দুল কুদ্দুস রুবেল ও সদস্য মাহমুদা খানম।
    অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন হাফিজ জুবায়ের আহমদ।
    প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিলেট রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি জয়দেব কুমার ভদ্র বিপিএম বলেন, হাজী আব্দুস শহীদ ফাউন্ডেশন পরিবার নিঃস্বার্থ ভাবে মনের তাগিদে দরিদ্র, অসহায়, বঞ্চিত মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। তারা শত বাধা বিপত্তি অতিক্রম করে মানুষের কল্যাণে কাজ করে সমাজে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। প্রবাসের যান্ত্রিক জীবনের ফাঁকে ফাঁকে তারা অত্যন্ত কষ্ট স্বীকার করে দেশের মানুষের জন্য অর্থ সংগ্রহ করছেন। তিনি বলেন, আমাদের প্রতিবেশী অভুক্ত থাকলে আমাদের ভালভাবে থাকার কোন মানে হয়না। সবাইকে খারাপ অবস্থায় রেখে আমি নিজে ভাল থাকবো এই মানসিকতা পরিহার করতে হবে। সেক্ষেত্রে তিনি হাজী আব্দুস শহীদ ফাউন্ডেশনের মানবতাবাদী কার্যক্রমের ভূয়শী প্রশংসা করেন। সভায় সেলাই মেশিন যারা পেয়েছেন তারা তা ব্যবহারের মাধ্যমে নিজের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন বক্তারা।
    উল্লেখ্য, এই ফাউন্ডেশন ২০০৮ সাল থেকে শিক্ষা, চিকিৎসা, বাসস্থান, দরিদ্র ছেলেমেয়েদের বিবাহের সাহায্যসহ সামাজিক উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। হিজামা ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে গ্রামের দুঃস্থ মানুষদের চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। জান আলী শাহ আদর্শ প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং গোটাটিকর দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য ফাউন্ডেশন সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। এসব কার্যক্রমে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কুদ্দুস রুবেল।