তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন স্থগিত ,তৃণমূলে নানা গুঞ্জন

1

তাহিরপুর প্রতিনিধি: বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ জাতীয় সম্মেলন সম্পুর্ন করতে প্রতি জেলা ও উপজেলার মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি ভেঙ্গে পুনরায় কমিটি গঠন করার নির্দেশ রয়েছে আওয়ামীলীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা ।আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশ অনুযায়ী সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের তাহিরপুর উপজেলা শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের তারিখ ১৭ নভেম্বর নির্ধারণ করা হলেও,নির্ধারিত তারিখে সম্মেলন না হওয়ায় তৃণমূলে চলছে কানাঘুষা। কি কারনে নির্ধারিত তারিখে সম্মেলন হয় নি, তা নিয়ে চলছে আওয়ামীলীগের তৃনমুল নেতাকর্মীদের চুল চেরা বিশ্লেষন ।

দীর্ঘদিন পর সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ হওয়ায়, তৃণমূল নেতাকর্মীদের মধ্যে যে উৎসাহ উদ্দীপনা উপজেলার সম্মেলন কে ঘিরে বিভিন্ন পদের দাবীদার নেতাদের সমর্থক কর্মীরা স্ব স্ব নেতাদের বিভিন্ন পদের দাবী নিয়ে ছিল ব্যাপক প্রচারণা। কিন্তু আজ নির্ধারিত তারিখে সম্মেলন না হওয়ায় তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মধ্যে হতাশা বিরাজ করছে।উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজারে সাধারণ কর্মীদের মধ্যে একটি প্রশ্ন-ই শুনা যাচ্ছে কেন হলনা সম্মেলন। তাদের এমন কানাঘুষাও হচ্ছে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা সম্মেলনের মাধ্যমে কমিটি গঠন হবে না-কি উপর মহলের পছন্দের নেতাদের নিয়ে কমিটি গঠন হয়ে যাবে যে কোনদিন। উপজেলার কর্মীদের মধ্যে অনেকেই বলাবলি করছে সম্মেলনের মাধ্যমে কমিটি হয়নাই,এখন উপর মহলে যাদের লবিংগের জোর রয়েছে তারাই হয়তোবা তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের তৃণমূলের নেতৃত্ব দিবে ।কিন্তু কি কারণে সম্মেলন হচ্ছে না এর সদুত্তর পাচ্ছে না উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ কর্মীরা।

উপজেলার বিভিন্ন ইউনিটের সচেতন কর্মীদের প্রশ্ন একটাই দেশের সর্ববৃহৎ দল আওয়ামিলীগ কি, আওয়ামীলীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশে তৃণমূলে ফলোআপ হচ্ছে। না-কি দলের শীর্ষ নেতারা নিজ নিজ বলয়ে আধিপত্য বিস্তার লাভে কাজ করে যাচ্ছে । এভাবে চলতে থাকলে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্নটা বাস্তবমুখী চিন্তা করা কষ্টদায়ক হবে বলে মনে করেন তারা।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ আওয়ামিলীগ সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল করিম ইমন এর মোবাইল নাম্বার না থাকায় একাধিক মাধ্যমে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।