আমার নামে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে আপনাদের কে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে, এমপি রতন

1

জেলার খবর:: মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যখন আমি আমার নির্বাচনী এলাকায় উন্নয়নের কাজ চালিয়ে যাচ্ছি, তখনই একটি কুচক্র মহল আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়ে গেছে । আমার নামে মিথ্যে অভিযোগ দিয়ে আপনাদের কে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে । উনি বলেন আমি কৃষকের সন্তান আমি আপনাদের সন্তান, আমি মোয়াজ্জেম হোসেন রতন থেকে আপনারা আমাকে এমপি রতন বানিয়েছেন ,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে তিন-তিনবার মনোনয়ন দিয়ে আপনাদের মাঝে পাঠিয়েছেন এবং আপনারা আমাকে তিন-তিনবার সর্বোচ্চ ভোটের ব্যবধানে নির্বাচিত করে মহান সংসদে পাঠিয়েছেন আপনাদের সেবক হিসাবে।তাই আমি আমার সর্বোচ্চ চেষ্টা করে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত আছি, এরি জন্যে একটি কুচক্রী মহল আমার নামে বিভিন্ন অপবাদ দিয়ে যাচ্ছে,এবং আপনারা তাদের উচিৎ জবাব দিয়ে যাচ্ছেন এ ব্যাপারে আমার কোন কথা নেই।আপনারা সঙ্গে থাকলে অপবাদ ও অপপ্রচার করে আপনাদের কাছ থেকে আমাকে বিচ্ছিন্ন করতে পারবেনা। গতকাল শুক্রবার (১,নবেম্বর) সন্ধ্যায় বংশীকুন্ডা মমিন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বংশীকুন্ডা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মঞ্জুরুল হকের সভাপতিত্বে আওয়ামীলীগনেতা সামিউল কিবরিয়া,বংশিকুন্ডা দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সাধারণ সম্পাদক সুরঞ্জন সরকার ও আনোয়ার হোসেন এর যৌথ সঞ্চালনায়, পল্লী বিদ্যুৎ সংযোগ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা গুলো বলেন, এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মহিবুল কিবরিয়া তালুকদার,উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ধর্মপাশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন রোকন, মধ্যনগর থানা যুবলীগের সভাপতি মোস্তাক আহমেদ, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুর শহীদ আজাদ,কুতুব উদ্দিন তালুকদার,মোবারক হোসেন তালুকদার,মধ্যনগর থানা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক বিদ্যুৎ কান্তি সরকার উত্তর বংশীকুন্ডা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মজিদ, ছাত্রলীগ নেতা এহসান বিন মর্তুজ ছাত্রলীগ নেতা জাকির হোসেন প্রমুখ।এছাড়াও স্থানীয় আওয়ামীলীগ,যুবলীগ,স্বেচ্ছা সেবকলীগ, ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন । ।
দীর্ঘদিনের লালিত সপ্ন বিদ্যুৎ সংযোগ উদ্বোধন শেষে বাউল সন্ধ্যায় মিলিত হয় বিদ্যুৎ সংযোগ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সম্মানিত বিনোদন প্রেমীরা।
উল্লেখ্য যে নেত্রকোণা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি অধীনে সুনামগঞ্জ হাওরাঞ্চলের মধ্যনগর থানার দক্ষিণ বংশীকুন্ডা ও উত্তর বংশীকুন্ডার দুটি ইউনিয়নে বংশীকুন্ডা, নিশ্চিন্তপুর, বাট্টা, দক্ষিণউড়া, ঢুলপুশি, হামিদপুর চৌরাস্তা,মহেষখলা, জামালপুর, কার্তিকপুর, হোসেনপুর, সাউদপাড়া সহ ১৩টি গ্রামের মধ্যে ৩ হাজার ৪৮৯ জন গ্রাহক পল্লী বিদ্যুতের সেবার আওতায় আসবে,এবং ৪৯ কিলোমিটার দীর্ঘ এই লাইনে, ৭ কোটি ৭০ লাখ ৮৬ হাজার টাকা ব্যয়ে নির্মিত বিদ্যুৎ সংযোগের মাধ্যমে ২,৯৪৫ জন আবাসিক, ৪৯০ টি বাণিজ্যিক, শিল্প ১৮টি,অগভীর নলকূপ ১৩ টি ও দাতব্য প্রতিষ্ঠান ২৩ টি বিদ্যুৎ পরিসেবার মধ্যে অর্ন্তভুক্ত হবে।