বিয়ের প্রলোভনে শারীরিক সম্পর্ক: অনশনে প্রেমিকা

3

জেলার খবরঃ জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশনে বসেছেন এক তরুণী (১৯)। শুক্রবার সকাল থেকে উপজেলার ছালাখুর গ্রামের প্রেমিক শফিকুল ইসলাম বাড়িতে তিনি অনশন করছেন। ওই তরুণীর অনশনে বসায় বাড়িতে তালা ঝুলিয়ে প্রেমিক শফিকুল ইসলামের বাবা-মাসহ পরিবারের সকলে পালিয়ে গেছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার ওই তরুণীর সঙ্গে পাঁচবিবি উপজেলার ছালাখুর গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে শফিকুল ইসলামের (৩০) ঢাকায় একটি গার্মেন্টেসে চাকরির সুবাদে পরিচয় হয়। পরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।
অনশনরত ওই তরুণী বলেন, প্রায় এক বছর ধরে আমার আর শফিকুলের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক চলছে। এরই মধ্যে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে শফিকুল একাধিকবার আমার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কও করেছে। এছাড়াও বিভিন্ন অজুহাতে আমার কাছ থেকে প্রায় এক লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। আমি শফিকুলকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে সে ঢাকা থেকে পালিয়ে আসে। তাই উপায়ান্তর না পেয়ে শফিকুলের খালু সাইদুলকে সঙ্গে নিয়ে সকালে ওর বাড়িতে এসেছি।
তিনি বলেন, আমি এই বাড়িতে আসার পর থেকে শফিকুলসহ তার পরিবারের সবাই পালিয়ে গেছে। আমি তাকে বিয়ে করতে চাই। শফিকুল আমাকে বিয়ে না করলে আত্মহত্যা করা ছাড়া আমার কোনো উপায় নেই।
স্থানীয়রা বলেন, শফিকুল এর আগে আরও একাধিক মেয়ের সঙ্গে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে। আমরা তার সঠিক বিচারের দাবি জানাই। যাতে করে অন্য কোনো মেয়ের জীবন নষ্ট করতে না পারে।
পাঁচবিবি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুনসুর রহমান বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে মেয়েটির নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও মেয়েটি লিখিত অভিযোগ দিলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। পিবিএ