বাসর ঘর থেকে রাতে বের হয়ে শিক্ষকের আত্মহত্যা

জেলার খবর:: ধুমধাম করে বিয়ে করে মেয়ের বাবার বাড়ি থেকে ছেলের বাড়িতে নিয়ে আসে। এরপর সব আয়োজন শেষে রাতে নববধূকে নিয়ে বর-কনেকে বাসর ঘরে পাঠানো হয়। পরে রাতের কোন এসময় বর মো. মনির (২৬) নামে এক শিক্ষক ঘরের সামনের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে বলে সবার ধারণা।

ঘটনাটি ভোলা সদর উপজেলায় পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডে মঙ্গলবার সকালে পুলিশ নিজ বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহত মনির ভোলা সদর উপজেলায় পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের গুপ্ত মুন্সি গ্রামের আমিনুল মাস্টারের ছেলে এবং স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, গত শুক্রবার (১৬ আগস্ট) মনিরের সঙ্গে ভোলা পুলিশ লাইন এলাকার মাহে আলমের মেয়ে বিবি জয়নবের (২১) বিয়ে হয়। গতকাল সোমবার ধুমধাম করে মেয়েকে তার বাবার বাড়ি থেকে ছেলের বাড়ি আনা হয়। রাতে সব আয়োজন শেষে বর-কনেকে বাসর ঘরে পাঠানো হয়। পরে রাতের কোনো এক সময় বর মনির ঘরের সামনের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। মঙ্গলবার ভোরে ডেকোরেটরের লোকজন বাড়িতে আসলে মনিরের ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করে। তবে কী কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন তা বলতে পারছেন না কেউ।

ভোলা ইলিশা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ রতন চন্দ্র শীল বলেন, খবর পেয়ে আমরা বরের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাদতন্তের জন্য ভোলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছি। এটি হত্যা না আত্মহত্যা এখনি বলা যাচ্ছে না। তবে তদন্ত চলছে।

সংবাদকর্মি নিয়োগ চলছেঃ-

দেশের সকল জেলা উপজেলাইয় সংবাদকর্মি নিয়োগ চলছে । আমাদের সাথে কাজ করতে সরাসরি যোগাযুগ করুন ০১৭১১০০০২১৪