সাতক্ষীরায় স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর স্বামীর বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা, স্বামী আটক

1

জেলার খবরঃ সাতক্ষীরার আশাশুনিতে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর স্বামী বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় স্বামী কাসেম মোল্যাকে আটকের পর আশাশুনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পুলিশ হেফাজতে তার চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। নিহতের নাম শাহিদা খাতুন (১৮)। সে আশাশুনি উপজেলার কোদন্ডা আদর্শ গ্রামের মাজেদ গাজীর কন্যা ও একই গ্রামের কাসেম মোল্যার স্ত্রী।

জানা যায়, আশাশুনি উপজেলার কোদন্ডা আদর্শ গ্রামের মৃত নওশের মোল্যার পুত্র কাশেম মোল্যার সাথে একই গ্রামের মাজেদ গাজীর কন্যা শাহিদা খাতুনের ৭ মাস পূর্বে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে প্রায়ই তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক কলহ লেগেই থাকতো। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার ভোর রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে গোলযোগের একপর্যায়ে কাশেম তার স্ত্রী শাহিদার গলায় ওড়না পেচিয়ে শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যা করে। এরপর সে নিজে বিষ খেয়ে বাড়ির ধারে একটি খালের পাশে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকে। সকালে বিষয়টি জানাজানি হওয়ার এক পর্যায়ে তার স্থানীয়রা থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে শাহিদার লাশ উদ্ধার করে এবং স্বামী কাসেম মোল্যাকে আটক করে।

আশাশুনি থানার ভারপ্রাপ্ত কম্যকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার নাথ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহত গৃহবধূ শাহিদার লাশের সুরতহাল রিপোর্ট শেষে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় ঘাতক স্বামী কাশেম মোল্যাকে আটকের পর আশাশুনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পুলিশ হেফাজতে তার চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।