পার্বত্য শান্তিচুক্তির ২২ বছর আজ

অনলাইন ডেস্কঃ পার্বত্য শান্তিচুক্তির ২২ বছর হলো আজ। পাহাড়ে রক্তক্ষয়ী সংঘাত বন্ধে ১৯৯৭ সালের ২ ডিসেম্বর জনসংহতি সমিতির সঙ্গে শান্তিচুক্তি করে তৎকালীন আওয়ামী লীগ সরকার। পরের বছর ১০ ফেব্রুয়ারি খাগড়াছড়ি স্টেডিয়ামে সন্তু লারমার নেতৃত্বে আত্মসমর্পণ করেন জনসংহতি সমিতির নেতাকর্মীরা। সেইসঙ্গে দুই দশকের লড়াইয়ের অবসান হয় ।

কিন্তু চুক্তি পুরোপুরি বাস্তবায়ন না হওয়ায় পাহাড়ে এখনও শান্তি ফেরেনি। বরং নতুন করে সংঘাত বেড়েছে। নতুন নতুন দল ও বাহিনী গঠন হয়েছে। যারা জড়িয়ে পড়েছে খুন-অপহরনের মতো ঘটনার সঙ্গে জড়িয়ে পড়ছে।

এক পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়,২০১৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত গত ছয় বছরে ২০৭ জন ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর মানুষ ও ১১৪ জন বাঙালি নিহত হয়েছেন। অপহরণের শিকার হয়েছেন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ৩৪৭ জন। এ সংখ্যা বাঙালিদের মধ্যে ১৬৯ জন।

সংঘাতের সময় ৬৫ হাজার পাহাড়ি ভারতে আশ্রয় নেয়, বেদখল হয় তাদের ভূমি। শান্তিচুক্তির পর তাদের ভারত থেকে ফিরিয়ে আনা হলেও চুক্তি অনুযায়ী এখনো ভিটেমাটিতে ফিরতে পারেনি অনেকে। পায়নি সরকারি চাকরিও।দীর্ঘ দিনেও ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি, পার্বত্য জেলা পরিষদ নির্বাচন না হওয়াসহ আর্ও কিছু দাবি নিয়ে অসন্তোষ কাটেনি।

চুক্তি সম্পাদনকারী দল জেএসএস নেতারা অভিযোগ করেছেন, সরকার চুক্তি বাস্তবায়নে আন্তরিক নয় ।আর পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর দাবি, শান্তি নিশ্চিতে চুক্তির পরিপূর্ণ বাস্তবায়নের বিকল্প নেই।

রোববার (১ ডিসেম্বর) এক সম্মেলনে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির শীর্ষ নেতা জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা ওরফে সন্তু লারমা বলেন, ‘সরকার জুম্ম জাতিগুলোকে চিরতরে নির্মূলকরণের হীন উদ্দেশ্যে যুগপৎ বাঙালিকরণ ও ইসলামিকরণের ষড়যন্ত্র বাস্তবায়ন করে চলেছে। সরকার চুক্তির যথাযথ বাস্তবায়ন করেনি-অভিযোগ করে তিনি বলেন, পাহাড়ে এখনও অস্ত্রবাজি, খুন, অপহরণ ও চাঁদাবাজি চলছে।

তবে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, পাহড়ে বসবসারত জনগণের অধিকার রক্ষায় সরকার আন্তরিক।পাহাড়ের সব জায়গায় উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে।ইতোমধ্যে বেশিরভাগ চুক্তি বাস্তবায়ন করা হয়েছে। বাকিগুলো বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

পার্বত্য এলাকায় ১১টি জাতিসত্ত্বার পাশাপাশি বাঙালিরাও সহবস্থানে আছে। স্থানীয়রা বলছেন, চুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়নেই শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান নিশ্চিত করা সম্ভব।

বিএনএনিউজ২৪.কম/আর করিম চৌধুরী,এস জি নবী

সংবাদকর্মি নিয়োগ চলছেঃ-

দেশের সকল জেলা উপজেলাইয় সংবাদকর্মি নিয়োগ চলছে । আমাদের সাথে কাজ করতে সরাসরি যোগাযুগ করুন ০১৭১১০০০২১৪