কে কখন কিসে ধরা পড়ে তার কোনো ঠিক নেই : প্রধানমন্ত্রী

3

ক্যাসিনো ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে জড়িত এটা ঠিক না। এটা বোর্ডের কিছু না। কাসিনোতে যিনি ছিলেন, তিনি ধরা পড়েছেন। এছাড়া দেশের মধ্যে এ ধরনের একটা কাণ্ড হতে চলেছে, কেউই তো জানতো না। সংবাদমাধ্যমও তো জানে না। কাজেই কে কখন কিসে ধরা পড়ে তার কোনো ঠিক নেই কলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার (৩০ অক্টোবর) বিকেলে গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। আজারবাইজানে ন্যাম শীর্ষ সম্মেলনে অংশগ্রহণের অভিজ্ঞতা জানাতে এ সংবাদ সম্মেলন করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সাংবাদিকরা এত খবর রাখেন অথচ ক্যাসিনো সম্পর্কে জানেন না কেনো। এতদিন ধরে কোনো একটা গণমাধ্যম এমন নিউজ দিতে পারলো না। এ জবাব কি সাংবাদিকরা জাতির কাছে দিতে পারবেন।

তিনি বলেন, আমারও প্রশ্ন এ রকম ঘটনা ঘটে যাচ্ছে কেউ জানে না। মানুষ যখন অপরাধের সঙ্গে জড়ায় হয়তো প্রথম কেউ জানে না। কিন্তু একপর্যায়ে থাকে ধরা পড়তেই হবে। কেননা, কখন কে কোন অপরাধে ধরা পড়ে তার কোনো ঠিক নেই। আর অপরাধ করলে ধরা তাকে পড়তেই হবে।

ক্রিকেটারদের দাবি-দাওয়া বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিসিবিকে তারা জানাতে পারতো। আন্দোলনে না গিয়ে দাবি-দাওয়া উত্থাপন করতে পারতো। তবে সেটা এখন মিটমাট হয়ে গেছে। কেননা, আমরা যেভাবে আমাদের ক্রিকেটারদের সমর্থন দিই, পৃথিবীর খুব কম দেশই আছে এমন সমর্থন দেয়। আমাদের ক্রিকেটাররা খেলছেও ভালো।

প্রধানমন্ত্রী ১২০টি উন্নয়নশীল দেশের ফোরাম নন-অ্যালাইনড মুভমেন্ট (ন্যাম) সম্মেলনের ১৮তম সম্মেলনে যোগ দিতে ২৪ অক্টোবর থেকে ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত আজারবাইজান সফর করেন। আজারবাইজানের রাজধানী বাকুর বাকু কংগ্রেস সেন্টারে ২৫ ও ২৬ অক্টোবর দুই দিনব্যাপী এই ন্যাম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। অন্যান্য সদস্য দেশগুলোর সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ন্যাম সম্মেলনে যোগ দেন।

পিবিএ