প্রধান সড়ক-মহাসড়কের পাশে পশুর হাট নয়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

3

জাতীয়:: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জানিয়েছেন, পবিত্র ঈদুল আজহায় প্রধান সড়ক এবং মহাসড়কের পাশে কোরবানির পশুর হাট বসাতে দেওয়া হবে না। নির্ধারিত স্থানের বাহিরে যেন কেউ হাট বসাতে না পারে সে বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করতে ইতোমধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, দেশের বন্যাকবলিত এলাকায় যদি নির্ধারিত জায়গায় পশুর হাট বসানো সম্ভব না হয় তাহলে বিকল্প ব্যবস্থা করা হবে। জেলা প্রশাসকদের সেই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। রোববার (১৪ জুলাই) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান। এর আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে আইন-শৃংখলা সংক্রান্ত বৈঠকে অংশ নেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, বৈঠকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত হয়েছে। সেগুলোর মধ্যে, সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ছাড়া প্রশাসন সড়কে পশুবাহী ট্রাক তল্লাশি করবে না। প্রতিটি পশুর হাটে হাসিলের তালিকা ঝোলানো বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। যে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা এড়াতে হাটগুলোতে পুলিশি প্রহরা থাকবে। হাটে জাল নোট শনাক্তকরণ মেশিন রাখার কথা বলা হয়েছে। তিনি আরও জানান, পশুর হাট ছাড়াও ঈদ মৌসুমে সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রশাসন নির্ধারিত স্থানেই যেন কোরবানির পশু জবাই করা হয় তা পর্যবেক্ষণ করা হবে। চোর, ছিনতাইকারী এবং অজ্ঞানপার্টির তৎপরতা রোধ করতে বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এবার শপিং মলগুলোও পুলিশি নজরদারিতে থাকবে। এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ঈদকে কেন্দ্র করে নাশকতার কোনো আশঙ্কা নেই। তবু আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সতর্ক অবস্থানে রয়েছে।ঈদযাত্রা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ঈদে যেন কেউ অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করতে না পারে সেদিকে বিশেষ নজর থাকবে। প্রতিটি কাউন্টারে নির্ধারিত ভাড়ার তালিকা প্রর্দশন করতে হবে।