অসুস্থ মায়ের চিকিৎসা করাতে না পেরে ছেলের আত্মহত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : অসুস্থ মায়ের চিকিৎসা করাতে না পেরে এক ছেলে আত্মহত্যা করেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দেগঙ্গা থানার হাদিপুর অঞ্চলের দেওয়ানআটি স্টেশনপাড়ায় এ ঘটনা ঘটেছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম এই সময় জানিয়েছে, অসুস্থ প্রীতিকণা মণ্ডলের চিকিৎসার খরচ সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছিলেন তার ছেলে পেশায় দিনমজুর কৃষ্ণপদ মণ্ডল (২৫)।

এ জন্য বেশ কিছুদিন ধরেই অবসাদগ্রস্ত ছিলেন তিনি। রোববার রাতে কৃষ্ণর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান প্রতিবেশীরা।

প্রতীকী ছবি
জানা গেছে, মাস কয়েক আগে বাবা আচমকাই বাড়ি থেকে নিখোঁজ হন। এখনও তার খোঁজ মেলেনি। শারীরিক অসুস্থতার কারণে মা শয্যাশায়ী। এই পরিস্থিতিতে পরিবারের বড় ছেলে কৃষ্ণপদ মণ্ডল রোববার রাতে নিজের ঘরেই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

পুলিশের ধারণা, মানসিক অবসাদ থেকেই ওই যুবক আত্মঘাতী হয়েছেন। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে এলেই মৃত্যুর কারণ পরিষ্কার হবে।

সূত্রে জানা গেছে, দেগঙ্গা থানার হাড়োয়া রোড স্টেশনের ২ নম্বর প্ল্যাটফর্মের নীচেই রেল বস্তি। ঘিঞ্জি এলাকায় দরমা বেড়ার একটা ঘরেই অসুস্থ মাকে নিয়ে থাকতেন কৃষ্ণ।

পরিবার কৃষ্ণের বাবা সমীর ৯ মাস আগে আচমকাই নিখোঁজ হয়ে যান। তার ৬ মাসের মাথায় প্রীতিকণা ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে পড়েন।

এরপর সংসারের দায়িত্ব, মায়ের চিকিৎসার খরচের টাকা জোগাড় করা তার পক্ষে সম্ভব হচ্ছিল। অর্থ উপার্জনের জন্য কৃষ্ণের ১৩ বছরের নাবালক ভাই অবিনাশকেও স্থানীয় একটি সাইকেল গ্যারেজে কাজ করতে হয়।

শয্যাশায়ী মায়ের দেখাশোনার জন্য নিয়মিত দিনমজুরের কাজেও যেতে পারছিলেন না কৃষ্ণ।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, রোববার কাজে গিয়েও ফিরে এসেছিলেন কৃষ্ণ। মায়ের কাছেই ছিলেন বেশ কিছুক্ষণ। রাতের দিকে মায়ের বিছানার পাশেই গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হন তিনি।

পিবিএ/জেডআই

সংবাদকর্মি নিয়োগ চলছেঃ-

দেশের সকল জেলা উপজেলাইয় সংবাদকর্মি নিয়োগ চলছে । আমাদের সাথে কাজ করতে সরাসরি যোগাযুগ করুন ০১৭১১০০০২১৪