চুয়াডাঙ্গায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দুই ডাকাত গ্রেফতার

3

অনলাইন ডেস্কঃ চুয়াডাঙ্গা জেলার সদর থানাধীন দিগরী এলাকা হতে ডাকাতীর প্রস্তুতিকালে ০২ (দুই) জন ডাকাতকে ০২ টি রামদা, ০১ টি ছোরা, ০১ টি চাইনিজ কুড়াল এবং ০১ টি চাপাতি সহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৬।

২৪ নভেম্বর ২০১৯ ইং তারিখ রাত ১১.০০ ঘটিকার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিপিসি-২, র‌্যাব-৬ এর একটি চৌকস আভিযানিক দল জানতে পারে যে, চুয়াডাঙ্গা জেলার সদর থানাধীন দিগরী ইসলামপুর জামে মসজিদ সংলগ্ন পাকা রাস্তা হতে অনুমান ২৫০ গজ দক্ষিনে বাঁশ ঝাড়ের ভিতর একদল অজ্ঞাতনামা সশস্ত্র ডাকাত দল ডাকাতির উদ্দেশ্যে পূর্ব প্রস্তুতি গ্রহণ করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মাসুদ আলম এবং স্কোয়াড কমান্ডার সিনিয়র এএসপি মোঃ বজলুর রশীদ এর নেতৃত্বে আভিযানিক দল রাত ১১: ৫৫ ঘটিকায় ঘটনাস্থলে পৌছালে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে কতিপয় লোক দৌড়ে পালানোর সময় র‌্যাব সদস্যরা ধাওয়া করে ০২ জন ডাকাত ১। মোঃ খালিদ মন্ডল (২৫), পিতা-মোঃ বিশারত আলী, সাং-সাতগাড়ী (নতুন পাড়া), ২। মোঃ রাফিউল ইসলাম (২২), পিতা-মোঃ ইউনুস আলী, সাং-সাতগাড়ী (ঝিনাইদহ বাসস্ট্যান্ড পাড়া), উভয় থানা ও জেলা- চুয়াডাঙ্গাদ্বয়কে আটক করে এবং অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জন পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়ের দখল হতে দেশীয় তেরী ০২ টি রামদা, দেশীয় তৈরী ০১ টি ছোরা, দেশীয় তৈরী ০১ টি চাইনিজ কুড়াল, দেশীয় তৈরী ০১ টি চাপাতি, ০৩ টি মোবাইল সেট এবং ০৫টি সীম কার্ড উদ্ধার করে।
গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ খালিদ মন্ডল এর নামে চুয়াডাঙ্গা জেলার বিভিন্ন থানায় বিস্ফোরক, দ্রুত বিচার আইন এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে সর্বমোট ২১ টি মামলা এবং গ্রেফতারকৃত অপর আসামী মোঃ রাফিউল ইসলাম এর নামে ০২ টি মামলা রয়েছে। গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।