এসপি হারুনের বিরুদ্ধে তদন্ত হবে -স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন নিউজ ডেস্কঃ শিগগিরই নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রত্যাহার হওয়া পুলিশ সুপার (এসপি) হারুন অর রশিদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগের তদন্ত শুরু হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। বিভিন্ন অভিযোগের কারণে এসপি হারুনকে নারায়নগঞ্জ থেকে সরিয়ে আনা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর)স্বরারাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল আরও বলেন, ব্যবসায়ীর পরিবারকে রাতে তুলে এনে চাঁদা দাবির বিষয়ে প্রাথমিক অভিযোগে তাকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। তদন্তের পরেই বিষয়টি পরিস্কার করে বলা যাবে। বিষয়টি প্রশাসনিক বিষয় বলে জানান তিনি।

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল জানান, আফ্রিকাসহ বেশ কয়েকটি দেশের নাগরিকরা বিভিন্ন সময়ে ভিসা নিয়ে বৈধভাবে বাংলাদেশে এসেছেন। এমন ১১ হাজার নাগরিকের তালিকা তৈরি করা হয়েছে, যাদের ভিসা এবং পাসপোর্ট কোনটিরই মেয়াদ নেই। তাদের পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হলেও তারা কখনো নিজ দেশে যাওয়ার চেষ্টা করেনি। কিছু দেশের দূতাবাস রয়েছে যেখানে সরকারের পক্ষ থেকে তাদের নাগরিকদের বিষয়ে কথা বলার জন্য যোগাযোগ করা হলেও সাড়া পাওয়া যায়নি। এদের কিছু সংখ্যক অপরাধে জড়িয়ে কারাগারে বন্দী রয়েছেন। আবার কিছু সংখ্যক অবৈধভাবে বসবাস করছেন। তাই তাদের নিজ দেশে পাঠানোর জন্য সরকার উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি আম্বার গ্রুপের চেয়ারম্যান শওকত আজিজ রাসেলের কাছে চাঁদা দাবি ও তার পরিবারকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ ওঠে এসপি হারুনের বিরুদ্ধে । চাঁদার জন্য একাধিক শিল্পপতিকে তুলে নিয়ে সাজানো মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর ভয় দেখিয়েছেন।

গত রোববার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক প্রজ্ঞাপনে এসপি হারুন অর রশীদকে নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ সদর দপ্তরে ট্রেনিং রিজার্ভ) সংযুক্ত করা হয়। তবে পুলিশ সদর দপ্তর বলছে, এসপি হারুনের বিরুদ্ধে এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তখন তদন্ত এবং বিভাগীয় শাস্তির বিষয়টি সামনে আসবে।

বিএনএনিউজ২৪.কম/আর করিম চৌধুরী,এস জি নবী, এহক।

সংবাদকর্মি নিয়োগ চলছেঃ-

দেশের সকল জেলা উপজেলাইয় সংবাদকর্মি নিয়োগ চলছে । আমাদের সাথে কাজ করতে সরাসরি যোগাযুগ করুন ০১৭১১০০০২১৪