রিশা হত্যার আসামি ওবায়দুলের মৃত্যুদণ্ড

অনলাইন ডেস্কঃরাজধানীর কাকরাইলের উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের ছাত্রী সুরাইয়া আক্তার রিশা (১৫) হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় একমাত্র আসামী ওবায়দুলকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন মহানগর দায়রা জজ আদালত। ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ এই রায় ঘোষণা করেন। আসামিকে রায় শোনানোর জন্য কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়েছিল। পরে তাকে ফের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে গেল ১১ সেপ্টেম্বর আসামির উপস্থিততে রায় ঘোষণার জন্য ৬ অক্টোবর তারিখ নির্ধারণ করেছিলেন আদালত। কিন্তু ওই দিন আসামি ওবায়দুল হককে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করেননি কারা কর্তৃপক্ষ। এজন্য আদালত রায় ঘোষণার পিছিয়ে আজ (১০ অক্টোবর) নির্ধারণ করেন।২০১৬ সালের ২৪ আগস্ট দুপুর পৌনে ১২টার দিকে রিশাকে ছুরিকাঘাত করেন ওবায়দুল হক। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৮ আগস্ট রিশার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় রিশার মা তানিয়া হোসনে বাদী হয়ে রমনা থানায় মামলা করেন। প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় রিশাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেন বলে আদালতে স্বীকারোক্তি দেন একমাত্র আসামি ওবায়দুল হক।
ওবায়দুল রাজধানীর ইস্টার্ন মল্লিকা শপিংমলের বৈশাখী টেইলারসের কর্মচারী ছিলেন। ২০১৬ সালের শুরুর দিকে ইস্টার্ন মল্লিকা শপিং কমপ্লেক্সের বৈশাখী টেইলারসের একটি পোশাক বানাতে দেয় রিশা। এরপর থেকে ওবায়দুল রিশাকে ফোনে উত্ত্যক্ত করতেন। পরে ফোন নম্বরটি বন্ধ করে দিলে ওবায়দুল স্কুলে যাওয়ার পথে রিশাকে উত্ত্যক্ত করতে থাকেন। একপর্যায়ে তার প্রেমের প্রস্তাবে সাড়া না দেয়ায় রিশাকে ছুরিকাঘাত করেন তিনি।

পিবিএ

সংবাদকর্মি নিয়োগ চলছেঃ-

দেশের সকল জেলা উপজেলাইয় সংবাদকর্মি নিয়োগ চলছে । আমাদের সাথে কাজ করতে সরাসরি যোগাযুগ করুন ০১৭১১০০০২১৪